Skip to content

স্বরবর্ণ ডট কম নিয়ে নির্বাচিত ছোট গল্প – Swarborno.কম

swarborno-dot-com-niye-choto-golpo

ছোট গল্প ২০৫০ সাল ……!

– দাদু একটা সমস্যায় পরে গেছি ।

– কী সমস্যা দাদু?

– আমার কাছে কিছু পুরাতন বই আছে …

– তাহলে তুমি বই গুলো পড়ে ফেলো।

– বইগুলো আমার পড়া শেষ, তাই বলছি এই বইগুলো এখন কি করবো ?

– আচ্ছা এই সমস্যা ! তাহলে তোমাকে একটা গল্প বলতে হয় ।

– কি গল্প দাদু ?

– পুরাতন বই যেগুলো তুমি পড়ে ফেলেছো ঐসব বইয়ের গল্প।

– পুরাতন বইয়ের গল্প!

– হ্যাঁ, পুরাতন বইয়ের গল্প। তুমি নিশ্চয় জানো তোমার পড়ে ফেলা বই যা তোমার দরকার নেই সেই বই হয়তো অন্য কেউ খুঁজছে কিন্তু তাঁর হাতের নাগালে নেই।

– তাইতো !

– তাহলে চলো তোমাকে গল্পটি শুরু থেকে বলি। আজ থেকে ৩০ বছর আগের কথা। ২০২০ সালের শেষের দিকে বাংলাদেশে একটা নতুন স্বপ্নের লাল আভা পূর্ব আকাশে উঁকি দিলো এবং সেই স্বপ্নের নাম দেয়া হল – স্বরবর্ণ ডট কম। এই স্বপ্নটা দেখেছিলো বাংলাদেশের কয়েকজন তরুণ। তারাই চেষ্টা শুরু করেছিলো বাংলাদেশের বইবাজারের চিরাচরিত রূপ বদলে দিতে । স্বপ্নটা কী ছিল? স্বপ্নটা ছিল বাংলাদেশের ছাপ্পান্ন হাজার বর্গমাইল এলাকার সকল মানুষের হাতে তাঁর প্রয়োজনীয় সকল বই পৌছে দেয়া। কারণ বইয়ের আলোতেই আলোকিত হতে পারে সকল মানুষের কল্পনার জগত , তৈরি হতে পারে নতুন সৃষ্টিশীলতা। যে সৃষ্টিশীল মানুষ সমৃদ্ধ করবে বাংলার মেধা। সেই স্বপ্নের সারথি ছিলাম আমিও। খুব ছোট থেকে শুরু আমার। যে বইগুলো আমার পড়া শেষ হয়ে গেছে, আমি হয়তো ঐ বইগুলো ফেলনা কাগজের সাথেই ফেলেই দিতাম । কিন্তু স্বরবর্ণ ডট কম নতুন এক স্বপ্নের জানালা খুলে দিয়েছিলো । যে বইটি আমার দরকার নেই সেই বইটিই হয়তো হন্য হয়ে খুজে বেড়াছে দেশের কোনো এক প্রান্তের বইপ্রেমী । অথচ বইটি তাঁর আশে পাশের কোনো লাইব্রেরীতে নেই ! তখন আমার সেই বইগুলো আমি স্বরবর্ণ ডট কম এ আপলোড করে দিলাম । আশ্চর্য হয়ে আমি দেখি কয়েকদিনের মধ্যেই দেশের এক প্রত্যন্ত অঞ্চলের একজন বইপ্রেমী সেই বইটি সংগ্রহ করার জন্য অর্ডার করেছে ! প্রথম সেই বইয়ের অর্ডার এখনো মনে আনন্দের সঞ্চার করে । ঢাকার বাইরে থেকে তো বটেই বইয়ের জন্য আসা অর্ডার দেশের একদম প্রত্যন্ত অঞ্চলের ! বইটি তাঁর জন্য পাঠিয়ে দিয়ে নিজের মধ্যেই একধরনের আবেগ কাজ করছিলো । এরকম আরো হাজারো আবেগের কারিগর হচ্ছে স্বরবর্ণ ডট কম। আর এই আবেগ গুলোতেই কাজের আনন্দ খুঁজে নেয়াই রকমারি পরিবারের সকল সদস্যের মূলমন্ত্র ছিল। আর তাই তো স্বরবর্ণ ডট কম একটি কর্মক্ষেত্র নয় একটি পরিবার । কাজের ফাঁকে খুনসুটি, আইডিয়া জেনারেট করবার সময় সব আইডিয়াকে সেইম প্রায়োরিটি দেয়া, সব টিম ও টিম মেম্বারদের একই মর্যাদা দেয়ায় খুব দ্রুত তা সকলকে করে তোলে আত্মবিশ্বাসী। আর সেই আত্মবিশ্বাস সেলস জেনারেট করেছে অতি অল্প সময়ের মধ্যে কারণ প্রতিটা মানুষ সেখানে আবেগ দিয়ে কাজ করে খুজে পায় নিজের আত্মবিশ্বাস । একে একে একেকটি মাইলফলক অতিক্রম করতে থাকে স্বরবর্ণ ডট কম। এক লাখ, তিন লাখ, পাঁচ লাখ… টাকার সেলস খুব অল্প সময়েই দেশের অন্যতম বিশ্বাসযোগ্য ই-বানিজ্য প্রতিষ্ঠান হিসেবে গড়ে তুলতে থাকে। দেশের প্রতিটি প্রান্ত থেকে বইপ্রেমী মানুষ স্বরবর্ণ ডট কম এর মাধ্যমে যখন তখন বই আনিয়ে পড়তে পারছে। ঘরে বসেই বই হাতে পেয়ে যাওয়া তাদের কতো কর্মঘন্টাই না বাঁচিয়ে দিচ্ছে, বাঁচিয়ে দিচ্ছে পরিশ্রম । অনলাইনে বই কেনার পর সমস্যা থাকলে সুবধামতো রিটার্নও করা যাচ্ছে। সকল ধরনের পেমেন্ট অপশনের সুবিধা যেমন আছে তেমনি সবসময়ই থাকে অফার ও গিফটের চমক। স্বরবর্ণ ডট কম এর রিভিউ লাইব্রেরি দেশের অন্যতম বৃহৎ অনলাইন রিভিউ কালেকশন। বাঁধা এসেছে, কিন্তু স্বরবর্ণ ডট কম সকল বাঁধা পার করে বিশ্বাসের জায়গাটা রেখেছে অক্ষুণ্ণ । কারণ এই কোম্পানির প্রতিটি টিম মেম্বারের চোখে একটাই স্বপ্ন- সারা বাংলাদেশর হাতের নাগালে বই পৌছে দেয়ার স্বপ্ন। সে স্বরবর্ণ ডট কম থেকে অবসর নিব কি করে বই পড়ে জ্ঞান অর্জন করা বা নতুন কিছু সৃষ্টির জন্য বয়সতো কোনো বাঁধা নয়। এখনও স্বরবর্ণ ডট কম থেকে বই সংগ্রহ করি আবার পুরোনো বই অন্যের সংগ্রহে দিয়ে দেই । এরি মধ্যে তুমি তো আসলে দাদু ভাই । সবে তো বই পড়া শুরু করলে , তাই তোমাকে বলা হয় নি স্বরবর্ণ ডট কম এর গল্পটা।


– কিছুদিন আগে মাকে দেখলাম কিছু বই পার্সেল করতে। ভাবছিলাম কি করছে ? তাহলে মা তোমার মতোই অন্য বই প্রেমীর বই সংগ্রহকে সমৃদ্ধ করছে! আমিও তোমাদের মতো এমন স্বপ্নের সারথি হতে চাই।

– ওরে, আমার ছোট্ট দাদুভাই। তুই ই তো স্বপ্নের সোনার বাংলার প্রতিনিধি। তুই ই স্বরবর্ণ ডট কম !

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

0
    0
    Your Cart
    Your cart is empty